ভার্চুয়াল মাস্টারকার্ড সমস্যার সহজ সমাধান

ভার্চুয়াল মাস্টারকার্ডঃ

বর্তমানে অনলাইনে বিভিন্ন ছোট বড় পেমেন্ট করার জন্য জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হলো মাস্টারকার্ড। কিন্তু বিভিন্ন সমস্যার কারণে সবাই এই সুবিধা নিতে পারে না। একটি ইন্টারন্যাশনাল মাস্টারকার্ড হাতে পাওয়া অনেক সময় সম্ভব হয় না। যদিওবা পায় কিন্তু সেই কার্ডের অতিরিক্ত চার্জের জন্য ব্যবহার করা দুরূহ হয়ে পড়ে। এই সব সমস্যা সমাধানের জন্য আজকে আমাদের সাথে পরিচয় করাবো একটি ভার্চুয়াল মাস্টারকার্ড এর। মাস্টারকার্ড, পেপাল, পেওনিয়ার ও স্ক্রিল এর মাধ্যমে যে সকল কাজ করা সে সকল সব কাজই আপনি এই ভার্চুয়াল মাস্টারকার্ড দিয়ে করতে হবে। আপনি শুধু এটিএম বুথ থেকে টাকা তুলতে পারবেন না, তাছাড়া সকল ধরনের সুবিধা নিতে পারবেন। এই কার্ডের আরো একটি বড় সুবিধা হলো ওয়ান টাইম পেমেন্ট। জি হ্যাঁ, শুধু একবার পেমেন্ট করে সারাজীবন ব্যাবহার। আজকে আমরা  ভার্চুয়াল যে কার্ড নিয়ে কথা বলবো সেই কার্ডের নাম কিউ কার্ড (Qcard)। এই কার্ডের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আজকের বিশেষ আলোচনা।

virtual mastercard bangladesh,ভার্চুয়াল মাস্টারকার্ড virtual master card,virtual mastercard bd,virtual mastercard,qcardasia,qcard bangladesh

ভার্চুয়াল কিউকার্ড কেন ব্যাবহার করবেন?

ভার্চুয়াল প্রিপেইড কার্ড কিউকার্ড (Qcard) হলো মাস্টারকার্ড প্ল্যাটফর্মের। আপনি মাস্টারকার্ড, পেপাল, পেওনিয়ার, স্ক্রিল ব্যাবহার করে যে সকল সুবিধা পান তার সবই পাবেন এই কিউ কার্ডে। এটি একটি ইন্টারন্যাশনাল প্রিপেইড মাস্টারকার্ড। অনলাইনে সব ধরনের কেনাকাটা করতে এই কার্ড নিশ্চিন্তে ব্যাবহার করতে পারবেন।
এই কার্ডের সব চেয়ে বড় বিষয় হলো, আপনি অন্যান্য কার্ডে যেভাবে মাসিক বা বাৎসরিক চার্জ প্রদান করে থাকেন এই কার্ডে সেটি একেবারেই করতে হবে না। আপনাকে শুধুমাত্র একবারই পেমেন্ট করতে হবে। তাছাড়া আর কোনো সময় কোনো চার্জ প্রযোজ্য নয়। 

একনজরে কিউ কার্ডের সকল সুযোগ সুবিধা সূমহ:

  • অনলাইনে ইকমার্স সাইট গুলো থেকে যেকোনো প্রোডাক্ট কিনুন নিশ্চিন্তে। যেমন: Amazone, AliExpress, Alibaba, Daraz, Bdshop ইত্যাদি আরও অন্যান্য সাইট।
  • এটি একটি ভার্চুয়াল কার্ড হওয়ায় আপনি নিশ্চিন্তে শক্তিশালী নিরাপত্তার সাথে কার্ডটি ব্যাবহার করতে পারবেন।
  • ফেসবুক পেজ বুস্ট করতে পারবেন খুব সহজেই।
  • ডোমেইন, হোস্টিং কিনতে পারবেন যেকোনো ঝামেলা ছাড়াই।
  • ভ্রমণের টিকিট, পরীক্ষার ফিস, অনলাইন ক্যাম্পেইন ইত্যাদি নিশ্চিন্তে করতে পারবেন এই কিউ কার্ড দিয়ে।
  • গুগল প্লে স্টোর থেকে যেকোনো অ্যাপ কিনতে পারবেন ইচ্ছা মতো।
ইত্যাদি আরো অন্যান্য অনলাইন ভিত্তিক লেনদেন এর জন্য এই ভার্চুয়াল কার্ডটি সর্বোচ্চ নিরাপত্তার সাথে নিরাপদে ব্যাবহার করতে পারবেন। কার্ডটি কিনে ঝামেলা মুক্ত থাকুন অনলাইন ভিত্তিক যেকোনো লেনদেন থেকে। সহজে পেমেন্ট করার জন্য কিউ কার্ড খুবই জনপ্রিয়।
কার্ডের বিষয়ে আরো জানতে ও কার্ডটি কিনতে ভিজিট করুন এখানে... 


পোস্টটি কেমন লাগলো তা নিচে কমেন্টে জানান ও আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। নিজে জানুন অন্যকে ও জানতে সহযোগিতা করুন। প্রযুক্তি সম্পর্কিত যেকোনো তথ্য ও সমস্যার জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন আমাদের Contact Us বা Facebook পেজে। আমরা আপনার সমস্যা সমাধানের জন্য যথাসম্ভব চেষ্টা করবো।