সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন টাইটেল ট্যাগ


টাইটেল ট্যাগ

একটি ওয়েব পেজের জন্য টাইটেল ট্যাগ খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। একজন ইউজার ও সার্চ ইঞ্জিন টাইটেল দ্বারা বুঝতে পারে যে সেই ওয়েব পেজের মধ্যে কি রয়েছে। অর্থাৎ টাইটেল ওয়েব পেজের সারাংশ হিসেবে কাজ করে।
সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ রেজাল্ট গুলো ওয়েব পেজের টাইটেল দ্বারাই প্রদর্শিত হয়। নিচের চিত্রের মতোঃ

টাইটেল

একটি টাইটেলের গঠন কেমন হওয়া উচিৎ?

একটি টাইটেল এর গঠন এমন হতে হবে যেন সেটা ইউজারকে সহজেই আকৃষ্ট করতে পারে। কোনো পেজের টাইটেল সবসময় সেই পেজের কনটেন্টের সাথে মিল রেখেই তৈরি করতে হবে এবং একই কিওয়ার্ড একটি টাইটেলে একাধিকবার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকা উচিৎ। টাইটেল সব সময় ইউনিক রাখার চেষ্টা করতে হবে।

ভালো সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের জন্য অতিরিক্ত বড় টাইটেল দেয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। কারণ অতিরিক্ত বড় টাইটেলে অপ্রয়োজনীয় শব্দ বেশি চলে আসে। এবং খুব বড় টাইটেল সার্চ ইঞ্জিন গুগল সম্পূর্ণ না দেখিয়ে টাইটেলের কিছু অংশই দেখায়। নিচের চিত্রের মতোঃ

টাইটেলটি অতিরিক্ত বড় হওয়ার জন্য সম্পূর্ণ দেখাচ্ছে না গুগল

মূলকথা হলো, একটি টাইটেল-কে কনটেন্টের সাথে প্রাসঙ্গিক, ছোট ও তথ্যবহুল হওয়া উচিৎ।  
একজন ইউজার যে শব্দ বা কিওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করবে সেই শব্দ বা কিওয়ার্ডটি যদি সার্চ রেজাল্টে বোল্ড করে দেখায়, এবং সেটা যদি হয় সম্পূর্ণ পেজ টাইটেল, তাহলে সেই ওয়েবসাইটের ট্রাফিক অনেক বেড়ে যায়।

কিওয়ার্ড টি বোল্ড করে প্রদর্শিত হচ্ছে

টাইটেল কত ক্যারেক্টার ও পিক্সেলের মধ্যে হতে হবে?

একটি টাইটেলকে সব সময় ৫০-৬০ ক্যারেক্টার ও ৪৬০ পিক্সেল এর মধ্যে হওয়া উচিৎ। কারণ সার্চ ইঞ্জিন সার্চ রেজাল্টে খুব বড় টাইটেলকে সব সময় সম্পূর্ণ দেখায় না। যে টাইটেল গুলোর ক্যারেক্টার ও পিক্সেল সংখ্যা বেশি হয় সেই টাইটেল গুলো এসইও-এর জন্য বেশি ভালো ফলাফল আনতে পারে না। এজন্য টাইটেল ৫০-৬০ ক্যারেক্টার ও ৪৬০ পিক্সেলের মধ্যে রাখার চেষ্টা করা উচিৎ।

কিভাবে একটি টাইটেলের ক্যারেক্টার সংখ্যা ও পিক্সেলের পরিমাণ নির্ণয় করা যায় তা জানতে এখানে ক্লিক করুন...